1. pundrotvnews@gmail.com : admin :
মামুনুলদের বাদ দিয়ে সোমবার হেফাজতের কমিটি ঘোষণা - Pundro TV
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

মামুনুলদের বাদ দিয়ে সোমবার হেফাজতের কমিটি ঘোষণা

পুন্ড্র.টিভি ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
dvdfgfd

হেফাজতে ইসলাম ছয় মাসের ব্যবধানে তৃতীয় কমিটি করতে যাচ্ছে। আজ সোমবার (৭ জুন) সকাল ১১টায় রাজধানীর খিলগাঁওয়ে আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম মাদ্রাসায় সংবাদ সম্মেলনে এ কমিটি ঘোষণা করা হবে।

dvdfgfd

সংশ্নিষ্ট সূত্র জানিয়েছে যে, মামুনুল হকসহ আগের কমিটির অধিকাংশ নেতা বাদ যাচ্ছেন। অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি করার কথা বলা হলেও বিভিন্ন ধর্মভিত্তিক দলের ১০/১২ জন নেতাকে রাখা হবে। এ কমিটিকে আগাম প্রত্যাখ্যান করেছেন হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আহমদ শফীর অনুসারী তথা সরকার সমর্থকরা।

হেফাজতের সদস্য সচিব নুরুল ইসলাম জিহাদী সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ৩০ থেকে ৪০ সদস্যের কমিটি হবে। জুনায়েদ বাবুনগরী আরেক দফা আমির হতে যাচ্ছেন- তা নিশ্চিত করলেও কমিটিতে কারা থাকছেন, তা বলতে রাজি হননি তিনি।

আহমদ শফীর মৃত্যুর পর গত ১৫ নভেম্বর হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিশেষ সম্মেলনে মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে প্রধান উপদেষ্টা, জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির এবং নূর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করে হেফাজতের ১৫৫ সদস্যের কমিটি হয়। পরে কলেবর বাড়ে। বাদ দেওয়া হয় আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানী ও তার সমর্থকদের। কাসেমীর মৃত্যুতে মহাসচিব হন নুরুল ইসলাম জিহাদী।

উল্লেখ্য, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অতিথি করার প্রতিবাদে গত মার্চে আন্দোলনে নামে হেফাজত। স্বাধীনতা দিবসে সহিংসতার পর তাদের বিক্ষোভ ও হরতালে ব্যাপক তাণ্ডব হয়। সরকারি হিসাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৭ জনের।

মার্চের সহিংসতা ও ২০১৩ সালে শাপলা চত্বরে তাণ্ডবের ঘটনায় দায়ের মামলায় একে একে হেফাজতের প্রায় ৫০ কেন্দ্রীয় নেতাসহ ছয় শতাধিক কর্মী-সমর্থক গ্রেপ্তার হন। চাপে পড়ে ২৬ এপ্রিল মধ্যরাতে কমিটি বিলুপ্ত করেন জুনায়েদ বাবুনগরী। কয়েক ঘণ্টা পর নিজেকে আহ্বায়ক ও জিহাদীকে সদস্য সচিব করে আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করেন। পরে কমিটিতে আরও দু’জন সদস্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

ওই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণার ৪৩ দিনের মাথায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হচ্ছে। এ কমিটির পরিসর আগের মতো ঢাউস হবে না। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরিক জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ৩৪, সহিংসতা ও নারী কেলেঙ্কারির মামলায় কারাবন্দি মামুনুল হকের খেলাফত মজলিসের ১৬ নেতা ছিলেন আগের কমিটিতে। খেলাফত আন্দোলন, খেলাফত মজলিসের অপরাংশ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শ খানেক নেতা ছিলেন ওই কমিটিতে।

গ্রেপ্তার শুরুর পর হেফাজতের শীর্ষ নেতারা দুই দফা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে বৈঠক করেন। তাদের বিরোধীরাও বৈঠক করেন। সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে হেফাজত নেতাদের বৈঠক হয়। হেফাজত সূত্র জানিয়েছে, সরকারের দেওয়া তিনটি শর্ত ছিল নেতৃত্ব থেকে রাজনৈতিক দলের নেতাদের বাদ, মাদ্রাসা রাজনীতিমুক্ত করা এবং সরকার সমর্থকদের সঙ্গে সমন্বয়ে কমিটি গঠন। শর্ত মেনে মাদ্রাসাকে এরই মধ্যে রাজনীতিমুক্ত করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা দিয়েছে সরকার-স্বীকৃত কওমি মাদ্রাসার নিয়ন্ত্রক সংস্থা আল-হাইয়াতুল উলয়া লিল-জামিয়াতুল কওমিয়া।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১
Developed By Bongshai IT