1. pundrotvnews@gmail.com : admin :
মার্কিন অর্থ ও জ্বালানিমন্ত্রীসহ ৬১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা। ভিডিও - Pundro TV
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৯ অপরাহ্ন

মার্কিন অর্থ ও জ্বালানিমন্ত্রীসহ ৬১ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা। ভিডিও

পুন্ড্র.টিভি ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ বুধবার, ৮ জুন, ২০২২
dvdfgfd

অর্থ ও জ্বালানিমন্ত্রীসহ নতুন করে আরও ৬১ মার্কিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাশিয়া।

dvdfgfd

দেশটির অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন এবং জ্বালানিমন্ত্রী জেনিফার গ্রানহোম ছাড়াও প্রথম সারির মার্কিন প্রতিরক্ষা এবং গণমাধ্যম কর্মকর্তাদের টার্গেট করে নতুন এ নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেছে মস্কো। খবর রয়টার্স ও রিপাবলিক ওর্য়াল্ডের।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সোমবার নতুন এই নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা আসে। এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, নিষেধাজ্ঞার ফলে তালিকায় থাকা ব্যক্তিরা রাশিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

রাশিয়ার রাজনৈতিক এবং বিখ্যাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার জবাব দিতেই পাল্টা নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। যেসব মার্কিনি রুশ নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে, তাদের বেশিরভাগই গণমাধ্যম, বিমান তৈরি এবং সামরিক শিল্পের প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা।

রাশিয়া সম্পর্কে ভুয়া তথ্য প্রচারের অভিযোগে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের একাধিক কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেনে সংঘাত কেন্দ্র করে মস্কো এবং ওয়াশিংটন মাঝেমধ্যেই পরস্পরের বিরুদ্ধে এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যাচ্ছে।

অপরদিকে, রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট ও দেশটির বর্তমান নিরাপত্তা পরিষদের ডেপুটি চেয়ারম্যান দিমিত্রি মেদভেদেভ তার দেশের শত্রুদের বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

রাশিয়ার শত্রুদের ‘পাগল’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, শত্রুদের নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করা হবে।

মেদভেদেভ বলেন, আমাকে প্রায়ই জিজ্ঞেস করা হয়— কেন টেলিগ্রামে আমার পোস্টগুলো এত দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। আমি উত্তরে বলি— আমি তাদের ঘৃণা করি। তারা পাগল। তারা রাশিয়ার জন্য মৃত্যু চায়। আর আমি যতদিন বেঁচে আছি, তাদের নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করব।

সাবেক এই রুশ প্রেসিডেন্ট তার বিভিন্ন পোস্টে প্রায়ই ইউরোপ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউক্রেনের বিরুদ্ধে ব্যঙ্গাত্মক ভাষা ব্যবহার করে থাকেন। তবে সবশেষ এই কথাগুলো তিনি কাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন তা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেননি।

আগের পোস্টগুলোতে মেদভেদেভ ইউরোপীয় কমিশনের সভাপতি উরসুলা ভন ডার লেনকে ‘ইউরোপের অ্যান্টি উরসুলা নামে সম্বোধন করেছেন। একই সঙ্গে ন্যাটোর নীতিগুলোকে ‘মহাজাগতিক (কসমিক) ক্রেটিনিজম’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তাদের ‘মংগ্রেল (এক ধরনের কুকুর ছানা’ আখ্যা দিয়েছেন। আর দেশটির প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির চোখ নিয়ে তিনি প্রায়ই ‘ওগুলো মাদকের আগুনে জ্বলছে’।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১
Developed By Bongshai IT