1. shahajahanbabu@gmail.com : admin :
আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে হলেন ছাত্রদলের নতুন সভাপতি। ভিডিও - Pundro TV
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:২৭ অপরাহ্ন



আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে হলেন ছাত্রদলের নতুন সভাপতি। ভিডিও

পুন্ড্র.টিভি ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ সোমবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২২

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন কমিটিতে সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণকে। রোববার বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, গত ১২ এপ্রিল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মতবিনিময় হয়।

ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সব নেতারা সর্বসম্মতিক্রমে ছাত্রদলের গঠন-পুনর্গঠন বিষয়ে সব ক্ষমতা সংগঠনের অভিভাবক তারেক রহমানের ওপর অর্পণ করেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিদ্যমান কমিটি বিলুপ্ত করে  নতুন আংশিক কমিটি মনোনীত করেছেন।নতুন কমিটিতে সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ, সিনিয়র সহ-সভাপতি-রাশেদ ইকবাল খান, সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, এক নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আফসার মোহাম্মদ ইয়াহিয়া।

ওই কমিটি ঘোষণার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নানাভাবে আলোচিত হচ্ছে শ্রাবণের সভাপতি হওয়ার বিষয়টি। তার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উল্লেখযোগ্য পদধারী নেতা হওয়ায় এমন আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়রা বলছেন, আওয়ামী পরিবারের সদস্য হলেও প্রথম থেকেই শ্রাবণ ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।

এমনকি ভিন্ন রাজনৈতিক চেতনার হওয়ায় শ্রাবণের সাথে পরিবারের অন্য সদস্যদের সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেছেন তার বড় ভাই কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘আমরা শুনেছি শ্রাবণ কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সভাপতি হয়েছে। তবে তার সঙ্গে আমাদের পরিবারের কারও সম্পর্ক নেই। ১৬ বছর ধরে সে আমাদের বাড়িতে আসে না এবং যোগাযোগও নাই।’

জানা গেছে, শ্রাবণের বাবা কাজী রফিকুল ইসলাম একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, কেশবপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক। তার মেজো ভাই কাজী মুজাহিদুল ইসলাম পান্না উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক। সেজো ভাই কাজী আজহারুল ইসলাম মানিক উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক। এরকম একটি পরিবারের সন্তান কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে নানারকম আলোচনা শুরু হয়েছে।

এ নিয়ে কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার রুহুল আমিন বলেন, ‘রাজনীতি করার অধিকার সবার আছে। পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতি করলেও শ্রাবণ ছাত্রকাল থেকেই বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। এতে দোষের কিছু নেই। শ্রাবণ ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে, এটাকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছি।’

উল্লেখ্য, এর আগে ২০১৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বরে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী ছিলেন কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণ। সেই সময় আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে ছাত্রদলের সভাপতি প্রার্থী হওয়া নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়। ওই সম্মেলনে ভোটে হেরে তিনি সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোনীত হন। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল পুরনো কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ছিলেন।

https://www.facebook.com/pundrotvbd/videos/739538630539326

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২
Developed By ATOZ IT HOST