1. pundrotvnews@gmail.com : admin :
দূরবর্তী দ্বীপে রাজধানী নিতে ইন্দোনেশিয়ায় আইন পাস - Pundro TV
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

দূরবর্তী দ্বীপে রাজধানী নিতে ইন্দোনেশিয়ায় আইন পাস

পুন্ড্র.টিভি ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২২
dvdfgfd

রাজরাজাদের সময় নতুন নতুন শহর, রাজধানী গড়ে তোলার ঘটনা আহরহো ঘটত। সুবিধামতো তাঁরা পাল্টে নিতেন রাজধানী। তবে আধুনিক সময়ে বা নিকট-অতীতে ক্ষমতার রদবদলেও রাজধানী বদলের ঘটনা সচরাচর ঘটে না। তবে সব ঘটনার মধ্যেই ব্যতিক্রম রয়েছে।

dvdfgfd

তাই এই যুগেও রাজধানী পাল্টে ফেলার ঘটনা যে একেবারে ঘটেনি, তা আর বলার সুযোগ নেই। রাজনৈতিক কৌশলগত কারণে বা পুরোনো রাজধানীর চেয়ে আরও উপযোগী স্থান পাওয়া, নতুন পরিকল্পিত নগর গঠনের তাগিদ, যানজটসহ নানা সমস্যার সমাধান হিসেবে কয়েকটি দেশ বদলে ফেলেছে তাদের রাজধানীই। সর্বশেষ এই তালিকায় হয়তো যুক্ত হলো ইন্দোনেশিয়ার নাম।

ইতো মধ্যে রাজধানী স্থানান্তরে একটি বিল অনুমোদন করেছে ইন্দোনেশিয়ার পার্লামেন্ট। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

হাউস স্পিকার পুয়ান মহারানি  মঙ্গলবার দেশটির রাজধানী স্থানান্তরে পার্লামেন্টে বিল অনুমোদনের কথা জানান।

বিলটি অনুমোদনে আজই দেশটির পার্লামেন্টে ভোটাভুটি হয়। পার্লামেন্টে অনুমোদন পাওয়া বিল অনুযায়ী, জাকার্তা থেকে দেশটির রাজধানী দূরবর্তী বোর্নিও দ্বীপের কালিমানতানে স্থানান্তরিত হবে।

বিলটি আইনে পরিণত হওয়ার মধ্য দিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদোর একটি উচ্চাভিলাষী প্রস্তাবকে আইনি কাঠামো প্রদান করবে।

রাজধানীর উন্নয়নে অর্থায়নসহ অন্যান্য বিষয় কীভাবে পরিচালিত হবে, তা এই আইনের মাধ্যমে নির্ধারিত হবে।

ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাজধানী জাকার্তার জনসংখ্যা প্রায় এক কোটি। ব্যস্ত মেগাসিটি জাকার্তা নানা সমস্যায় জর্জরিত। এসব সমস্যার মধ্যে রয়েছে দীর্ঘস্থায়ী যানজট, বন্যা ও বায়ুদূষণ।

প্রেসিডেন্ট উইদোদো ২০১৯ সালে প্রথম তাঁর মেগা প্রকল্পের পরিকল্পনা ঘোষণা করেন। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে তার অগ্রগতি বিলম্বিত হচ্ছিল।

বোর্নিও বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম দ্বীপ। দ্বীপটি রাজনৈতিকভাবে তিনটি অংশে বিভক্ত। বোর্নিও দ্বীপের কালিমানতান অংশটি ইন্দোনেশিয়ার। এই অংশ ইন্দোনেশীয় বোর্নিও নামেও পরিচিত।

তবে রাজধানী সরিয়ে নিতে চাওয়ার একমাত্র কারণ যানজট নয়। প্রতিবছর ১ থেকে ১৫ সেন্টিমিটার করে ডুবছে জাকার্তা। শহরের প্রায় অর্ধেক এখন সাগরের উচ্চতার চেয়ে নিচে অবস্থান করছে। জলাভূমির ওপর এটির অবস্থান এখন। শহরটি জাভা সাগর পরিবেষ্টিত এবং এর মধ্য দিয়ে ১৩টি নদী বয়ে চলেছে।

দেশটির বড় আকারের শহুরে এলাকায় ৩ কোটি লোকের বাস। নগরবাসীর জন্য মাত্র ২-৪ শতাংশ অপরিশোধিত পানি শোধন করা হয়।

জানা গেছে, বর্নিও দ্বীপের কালিমানতান হতে পারে ইন্দোনেশিয়ার নতুন রাজধানী। রাজধানী স্থানান্তরে খরচ হতে পারে ৩৩০০ কোটি মার্কিন ডলার। আয়তন হতে পারে ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার হেক্টর। যেখানে ৯ লাখ থেকে ১৫ লাখ মানুষের ঘরবাড়ি বানানো যেতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১
Developed By Bongshai IT