1. pundrotvnews@gmail.com : admin :
মমেক ও রামেকে উপসর্গ নিয়ে আরও ১১ জনের মৃত্যু - Pundro TV
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন

মমেক ও রামেকে উপসর্গ নিয়ে আরও ১১ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিতঃ শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
dvdfgfd

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ হাসপাতালে নয়জন ও রাজশাহী হাসপাতলে ২ জন মারা যান।

dvdfgfd

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা যাওয়া ৯ জনের মধ্যে করোনায় একজন ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আটজন। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য জানান।
উপসর্গ নিয়ে মৃতরা হলেন- ময়মনসিংহ সদরের সমলা (৭০), তহুরা বেগম (৪৫), তারাকান্দার আয়েশা খাতুন (৭৫), হালুয়াঘাটের মেদেন সিথিল (৬২), নেত্রকোনা সদরের আয়েশা (৭০), দুর্গাপুরের প্রমোধ পাল (৬০), মোহনগঞ্জের শফিকুল (১৫) এবং টাঙ্গাইলের গোপালপুরের হাসমত আলি (৬০)। আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ময়মনসিংহ সদরের অনিল চক্রবর্তী (৮৫) নামে একজন।

ওদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে আরও দুজন মারা গেছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টা থেকে শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার মধ্যে তারা মারা যান। দুজনই করোনা সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। তারা রাজশাহী জেলার বাসিন্দা।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে করোনা সংক্রমণে কোনো রোগী মৃত্যুর তথ্য নেই। তবে করোনা সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্র (আইসিইউ) এবং ২৯/৩০ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন মারা গেছেন।

এদের মধ্যে একজন পুরুষ এবং একজন নারী। তাদের দুজনেরই বয়স ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে।

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি জানান, কুষ্টিয়া করোনা হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯ জন। গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত জেলায় ১৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯ জনের নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৫.০২শতাংশ।
বর্তমানে হাসপাতালে ২০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী ও ৩৩ জন উপসর্গ নিয়ে মোট ৫৩জন ভর্তি রয়েছে। তথ্য নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়া করোনা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ আশরাফুল আলম।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১
Developed By Bongshai IT